RSS

দম মরিচ খাসির মাংস

উপকরণ : ১ কেজি খাসির মাংস (চাপ), আধা কেজি ধনেপাতা, ২ কাপ আস্ত কাঁচা মরিচ, ৫টি সবুজ এলাচি, ১টি কালো এলাচি, ৫টি লবঙ্গ, আধা ইঞ্চির ১টি দারুচিনি, ২ চা-চামচ জিরাগুঁড়া, ৩ চা-চামচ ধনেগুঁড়া, ১ চা-চামচ হলুদগুঁড়া, আধা কেজি টক দই (৩ কাপ), ১ কাপ পেঁয়াজকুচি, ১ টেবিল চামচ আদাবাটা, ১ টেবিল চামচ রসুনবাটা, আধা চা-চামচ চিনি, ১ কাপ দেশি ঘি, লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি : ধনেপাতা এবং কাঁচা মরিচ একসঙ্গে মিহি করে বেটে নিন। সবুজ এলাচি, কালো এলাচি, লবঙ্গ এবং দারুচিনি একসঙ্গে গুঁড়া করে নিন। দই ভালো করে ফেটে নিন। এবার দই দিয়ে খাসির মাংস ভালো করে মেখে চার ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে দিন। মাংস বের করে সব উপকরণ একসঙ্গে দিয়ে ভালো করে মেখে নিন। এবার একটি ডেকচিতে মাখানো মাংস ঢাকনা দিয়ে ঢেকে আটা দিয়ে সিল করে দিন। অল্প আঁচে দুই ঘণ্টা দমে রেখে দিন। নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার দম মরিচ খাসির মাংস।

দম মরিচ খাসির মাংসরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৮ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 13, 2014 in খাসি, মাংসের নানা পদ

 

নারকেল পালংশাক ভাজা

উপকরণ : ১ কেজি পালংশাক (ধুয়ে পানি ঝরিয়ে কেটে নিতে হবে), আধা কাপ সরষের তেল, ১ টেবিল চামচ সরষেদানা, ১ কাপ নারকেল কোরানো, ১ টেবিল চামচ রসুনকুচি, ১ টেবিল চামচ কাঁচা মরিচকুচি, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ পেঁয়াজকুচি, ২ চা-চামচ আদাকুচি, আধা চা-চামচ হলুদগুঁড়া।

প্রণালি : কড়াইতে তেল গরম করে সরষেদানা ছেড়ে দিন। দানাগুলো ফুটে এলে একে একে রসুনকুচি, কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ, আদা দিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন। ভাজা মসলা থেকে সুগন্ধি বের হলে হলুদগুঁড়া দিয়ে নাড়াচাড়া করে নারকেল দিয়ে দিন। এবার কিছুক্ষণ পর শাকগুলো দিয়ে তিন মিনিট নাড়াচাড়া করে নামিয়ে রাখুন। অন্য একটি পাত্রে শাক ঢেলে ওপরে নারকেল দিয়ে পরিবেশন করুন।

নারকেল পালংশাক ভাজারেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৮ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 13, 2014 in পালং শাক, শাকসবজি

 

কই মাছের গঙ্গা যমুনা

এটি একটি মোগলাই খাবার। এই মাছের নামকরণ করা হয়েছে দুটি নদীর নামে, গঙ্গা আর যমুনা। কারণ, এই মাছ তৈরি করতে লাগবে দুই রকমের সস বা গ্রেভি। একটি সস সরষে দিয়ে আর অন্যটি হবে তেঁতুল দিয়ে। ওপরের অংশটি হবে হলদে আর নিচের অংশটি হবে কালচে।

উপকরণ : ৪টি কই মাছ, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ তেল (মাছ ভাজার জন্য)।

গঙ্গা সস
২ টেবিল চামচ হলুদ সরষেদানা বাটা, ৫-৬টি কাঁচা মরিচ চিরে নেওয়া, ১ চা-চামচ লাল মরিচের গুঁড়া, ১ চা-চামচ হলুদগুঁড়া, ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজবাটা, ১ চা-চামচ রসুনবাটা, লবণ স্বাদমতো, ১ চা-চামচ পাঁচফোড়ন, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ সরষের তেল।

যমুনা সস
১ চা-চামচ হলুদ সরষেদানা, ২ চা-চামচ তেঁতুলরস (তেঁতুল অল্প পানি দিয়ে ঘন করে গুলে নেবেন), আধা চা-চামচ লাল মরিচের গুঁড়া, ১ চা-চামচ চিনি, লবণ স্বাদমতো, এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ সরষের তেল।

প্রণালি : মাছগুলো ভালো করে ধুয়ে অল্প হলুদ এবং লবণ দিয়ে মেখে গরম তেলে ভেজে নিন। এক পাশে তুলে রাখুন।
এবার গঙ্গা সস বানানোর তেল গরম করে নিন। তাতে পাঁচফোড়ন দিয়ে দিন। পাঁচফোড়ন যখন ফুটতে থাকবে তখন তার মধ্যে একে একে পেঁয়াজবাটা, রসুনবাটা দিয়ে ভালো করে কষে নিন। এবার সরষেবাটা, হলুদের গুঁড়া, মরিচের গুঁড়া, লবণ, কাঁচা মরিচ এবং এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে দিন। পানি ফুটে এলে তার মধ্যে মাছগুলো ছেড়ে দিন। ঝোলটা ঘন হয়ে এলে চুলা বন্ধ করে দিন।

এবার অন্য একটি কড়াইয়ে যমুনা সসের তেল গরম করে নিন। এতে সরষেদানাগুলো ছেড়ে দিন। ফুটে উঠলে একে একে তেঁতুলের রস, মরিচের গুঁড়া, লবণ এবং চিনি দিয়ে একটু নেড়ে এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে দিন। পানি ফুটে ঘন হয়ে তেল ওপরে এলে পরিবেশন করার প্লেটে যমুনা সস ঢেলে দিন। এবার খুব সাবধানে গঙ্গার মাছগুলো হলুদ গ্রেভিসহ তুলে যমুনার গ্রেভির ওপর দিয়ে দিন। এমনভাবে সাজাতে হবে যেন হলুদ অংশটি ওপরে থাকে এবং তেঁতুলের অংশটি নিচে থাকে। ব্যস, হয়ে গেল কই মাছের গঙ্গা যমুনা।

কই মাছের গঙ্গা যমুনা রেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৮ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 13, 2014 in কই মাছ, মাছ

 

তিল দিয়ে ঢ্যাঁড়সের সবজি

উপকরণ : আধা কেজি বেগুন (লম্বা কালো বেগুন), ২৫০ গ্রাম কচি ঢ্যাঁড়স, দেড় কাপ টমেটোকুচি, ৩ টেবিল চামচ তিল (পানিতে ভিজিয়ে রাখুন), ১ টেবিল চামচ রসুনবাটা, ১ চা-চামচ আদাবাটা, ৪টি কাঁচা মরিচকুচি, আধা কাপ পেঁয়াজকুচি, ২ চা-চামচ ধনেগুঁড়া, ১ চা-চামচ জিরাগুঁড়া, আধা কাপ ধনেপাতাকুচি, আধা কাপ তেল।

প্রণালি : বেগুন লম্বা ফালি করে কেটে পানিতে ১ চা-চামচ লবণ দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন, যাতে কালো পানি বেরিয়ে যায়। ঢ্যাঁড়স ধুয়ে দুই পাশে কেটে আস্ত আস্ত রেখে দিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি দিয়ে নাড়তে থাকুন। পেঁয়াজ নরম হয়ে এলে একে একে আদাবাটা, রসুনবাটা, ধনেগুঁড়া, জিরাগুঁড়া দিয়ে অল্প অল্প পানি দিয়ে কষতে থাকুন। কষানো হয়ে এলে বেগুন এবং ঢ্যাঁড়স একসঙ্গে দিয়ে দিন। এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ পানি দিয়ে দিন। পানি শুকিয়ে এলে টমেটো এবং তিল পানি থেকে ছেঁকে দিয়ে দিন। আবার একই পরিমাণ পানি দিয়ে দিন। অল্প আঁচে রান্না করুন। একটু পরপর নেড়ে দিন। সেদ্ধ হয়ে এলে ধনেপাতা এবং কাঁচা মরিচ দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

তিল দিয়ে ঢ্যাঁড়সের সবজিরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ৮ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 13, 2014 in ঢ্যাঁড়স, শাকসবজি

 

মুচমুচে লইট্টা ভাজি

উপকরণ : লইট্টা মাছ (বেছে ধুয়ে পানি নিংড়ে নেওয়া) ২৭৫ গ্রাম, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, পেঁয়াজ বাটা ১ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লাল মরিচ গুঁড়া ৩ চা-চামচ, ভাজা ধনে গুঁড়া আধা চা-চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, ময়দা আধা কাপ, তেল ভাজার জন্য।

প্রণালি : মাছ ধুয়ে পানি নিংড়ে নিয়ে তেল, ময়দা, ১ চা-চামচ লাল মরিচের গুঁড়া এবং আধা চা-চামচ লবণ বাদে বাকি অন্য সব উপকরণ দিয়ে মেখে ফ্রিজে ঘণ্টা দুয়েক রেখে দিন। একটি কাগজের প্যাকেটে বা প্লাস্টিকের প্যাকেটে ময়দা এবং বাকি লবণ ও মরিচের গুঁড়া মিশিয়ে রাখুন। মাছ ভাজার আগে ফ্রিজ থেকে বের করে ময়দার প্যাকেটে ভরে ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে প্যাকেট থেকে মাছগুলো বের করে ব্যাটারে গড়িয়ে লাল লাল মুচমুচে করে ভেজে উঠিয়ে নিন। সসের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ব্যাটারের জন্য—উপকরণ : ময়দা এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, চালের গুঁড়া এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, খাওয়ার সোডা সিকি চা-চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ৫টি, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লেবুর রস আধা টেবিল চামচ, সিজনিং সস ১ টেবিল চামচ, গরম তেল আড়াই টেবিল চামচ, পানি ১ থেকে দেড় কাপ।

প্রণালি : বাটিতে ময়দা, খাওয়ার সোডা, গোলমরিচ গুঁড়া, চালের গুঁড়া, লবণ একত্রে মিশিয়ে নিন। এবার বাকি অন্য উপকরণগুলো দিয়ে প্রথমে ১ কাপ পানি দিয়ে মেখে পরে বাকি আধা কাপ পানি দিয়ে মিশিয়ে ফেটে মসৃণ ব্যাটার তৈরি করুন। তারপর গরম তেল মিশিয়ে আরও কিছুক্ষণ ফেটে নিয়ে এতে মাছ গড়িয়ে ভেজে নিন।

মুচমুচে লইট্টা ভাজিরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 7, 2014 in মাছ, লইট্টা মাছ

 

লইট্টা শুঁটকি ভুনা

উপকরণ : লইট্টা শুঁটকি ২০০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ৪ কাপ, রসুন মোটা কুচি দেড় কাপ, টমেটো বাটা ১ কাপ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, লাল মরিচ গুঁড়া ২ চা-চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, চিনি দেড় চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ৮টি, তেল ১ কাপ।

প্রণালি : শুঁটকি প্রতিটি ৩-৪ টুকরা করে কেটে শুকনো তাওয়ায় ভালো করে টেলে নিয়ে ঘণ্টা খানেক কুসুম গরম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর গরম পানি দিয়ে ভালো করে কয়েকবার ধুয়ে নিন। পানি ঝরিয়ে পাটায় সামান্য থেঁতো করে মাঝখানের মোটা কাঁটা ফেলে দিন। তেল গরম করে ২ কাপ পেঁয়াজ কুচি ও সিকি চা-চামচ লবণ দিয়ে ভাজুন। পেঁয়াজ মজে এলে বাকি পেঁয়াজ দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ ভেজে চিনি, টমেটো বাটা এবং লাল মরিচের গুঁড়া দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। সামান্য পানি এবং লবণ দিয়ে নাড়ুন। এবার কাঁচা মরিচ ও রসুন বাদে অন্যান্য মসলা দিয়ে অল্প পানি দিয়ে কষিয়ে শুঁটকিগুলো দিন। এবার রসুন কুচি ও কাঁচা মরিচ ফালি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। পাঁচ-সাত মিনিট পর নেড়ে আঁচ কমিয়ে দিন। ভুনা ভুনা হয়ে এলে আরও একবার নেড়ে ঢেকে দিয়ে পাঁচ মিনিট পর চুলা বন্ধ করে দিন। পাত্রে বেড়ে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

লইট্টা শুঁটকি ভুনারেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 7, 2014 in শুঁটকি

 

লইট্টা মাছের কাপ কেক

উপকরণ : সেদ্ধ করে কাঁটা বেছে নেওয়া লইট্টা মাছ ১ কাপ, সেদ্ধ চটকানো আলু আধা কাপ, ঝুরি করা গাজর ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা আধা টেবিল চামচ, মাখন ১ টেবিল চামচ, ব্রেডক্রাম্ব আধা কাপ, ডিম ১টি, পনির ঝুরি এক কাপ, গোল মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লেবুর রস আধা টেবিল চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, ফিশ সস ১ চা-চামচ, সাদা সস পরিমাণমতো অথবা স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি : বাটিতে মাছ ও আলুর সঙ্গে ঝুরি করা গাজর, গোলমরিচের গুঁড়া, ফিশ সস, লেবুর রস, পেঁয়াজ বাটা, মাখন, লবণ ও আধা কাপ ঝুরি করা পনির দিয়ে মেখে নিন। এবার ডিম দিয়ে মাখান। কাপকেক ডাইসে মাখন মেখে চারপাশে ময়দা ছিটিয়ে নিন। কেক ডাইসের এক-তৃতীয়াংশে মাছের মিশ্রণ দিয়ে চেপে তার ওপর সাদা সসের প্রলেপ এবং ঝুরি করা পনির ছিটিয়ে দিন। একইভাবে আরেক স্তর মাছ, সাদা সস ও পনির দিন। এভাবে সবগুলো ডাইস সাজান। এবার প্রি-হিটেড ওভেন ২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে ৪০ মিনিট বেক করুন। নামিয়ে ঠান্ডা হলে প্লেটে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

সাদা সস তৈরি
উপকরণ : মাখন ১০০ গ্রাম, ঘন দুধ দেড় থেকে ২ কাপ, ময়দা ৩ মুঠ, লবণ সিকি চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ।
প্রণালি : কড়াইয়ে মাখন দিয়ে ময়দা, লবণ ও গোলমরিচ দিয়ে বাদামি করে ভেজে নিন। এবার ১ কাপ ঘন দুধ দিয়ে ময়দার সঙ্গে মসৃণ করে মেশাতে থাকুন চুলা বন্ধ করে। এবার সসের ঘনত্ব বুঝে অল্প অল্প করে দুধ মিশিয়ে নিয়ে সাদা সস তৈরি করুন।

লইট্টা মাছের কাপ কেকরেসিপিটি প্রকাশিত হয় ১ এপ্রিল ২০১৪
PALO

 
মন্তব্য দিন

Posted by চালু করুন এপ্রিল 6, 2014 in মাছ, লইট্টা মাছ

 
 
Follow

Get every new post delivered to your Inbox.

Join 136 other followers

%d bloggers like this: